গুলসান ট্র্যাজেডিতে নিহতদের স্মরণে শোক র‌্যালী

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, আমরা আজ একটি কঠিন ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছি। দেশের প্রতিটি মানুষ আতঙ্কগ্রস্থ অসহায় অবস্থায় দিনযাপন করছে। স্বাধীন দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা বাধাগ্রস্থ হওয়ার কারণে সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদ মাথাছাড়া দিয়েছে। এই সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদ দমনে এই অবৈধ সরকার সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে বার বার কঠোর নিরাপত্তার কথা বলা হলেও বিদ্যমান সকল নিরাপত্তাকে ভেদ করে সন্ত্রাসী উগ্রপন্থীরা একের পর এক তাদের বেপরোয়ারা জীবন বিনাসী সহিংস কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে। মনে হচ্ছে এই উগ্রপন্থী অশুভ শক্তি সারা দেশেই তাদের অভয়ারণ্যে গড়ে তুলেছে। মানুষের প্রাণ কেঁড়ে নিয়ে রক্তক্ষরণের দ্বারা তাদের কর্মসূচি চালিয়ে কোন ধরনের প্রতিবন্ধকতাকে তোয়াক্কা করছে না। সন্ত্রাসীরা একের পর এক অভীনব প্রাণঘাতি হামলা করে সারা দেশটাকেই যেন একটা গোরস্থানে পরিণত করতে চায়। এদেশে স্বাভাবিক মৃত্যুর চেয়ে এখন অধিক সংখ্যক অস্বাভাবিক মৃত্যুর জানাযায় অংশগ্রহণ করতে হচ্ছে মানুষকে।

ডা. শাহাদাত আরও বলেন, বিএনপি সরকারের আমলেই আমরা শেখ আব্দুর রহমান ও বাংলা ভাইদের ফাঁসি দিয়ে জঙ্গি নিমূল করে ছিলাম। তাই দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব গণতন্ত্র এবং জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বিএনপির চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্যমত গড়ে তুলতে হবে। ডা. শাহাদাত চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের পক্ষ থেকে গুলশান ট্র্যাজেডিতে দেশী-বিদেশী এবং পুলিশ কর্মকর্তাসহ নিহতদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তাদের পরিবারবর্গের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। অদ্য সকাল ১০ ঘটিকার সময় চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে দলীয় কার্যালয় নাসিমন ভবনে গুলশান ট্র্যাজেডিতে নিহতদের স্মরণে শোক র‌্যালিপূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও চাকসুর এজিএস মাহবুবুর রহমান শামীম ও বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মাহবুবুর রহমান শামীম বলেন, এই অবৈধ সরকার দেশকে একটি বাঁকশালী রাষ্ট্রে পরিণত করতে চাই। দেশের মানুষের নিরাপত্তা নেই। সাধারণ মানুষ স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে ব্যর্থ হচ্ছে। আন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারের পদত্যাগ বাধ্য করতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আবুল হাশেম বক্কর বলেন, এই অবৈধ সরকার রাষ্ট্র পরিচালনায় ব্যর্থ হয়েছে। বিরোধী দল দমনের নামে হাজার হাজার নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করছে। কঠিন আন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারের পদত্যাগে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।

মহানগর বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ও বন্দর থানা বিএনপির সভাপতি মোহাম্মদ মিয়া ভোলার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন এম.এ. আজিজ, এস.এম সাইফুল আলম, হারুন জামান, শেখ নুরুল্লাহ বাহার, শফিকুর রহমান স্বপন, শাহ আলম, সামশুল আলম, ফাতেমা বাদশা, হাজী নবাব খান, আবুল হাশেম, জেলি চৌধুরী,  ইকবাল চৌধুরী, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, জাহেদুল হাসান, ইসহাক চৌধুরী আলিম, সাবেক কাউন্সিলর হাজী মুহাম্মদ তৈয়্যব, হাসান মুরাদ, হাজী হানিফ সওদাগর, আলী আব্বাস খান, সৈয়দ শিহাব উদ্দিন আলম, শাহেদ বক্স, কামরুল ইসলাম, আমিন মাহমুদ, হাবিবুর রহমান চৌধুরী, নুর হোসেন, মাহবুবুল আলম, সায়মা হক, হাজী এমরান, আলহাজ্ব জাকির হোসেন, মুসা আলম, গুলজার হোসেন লেদু, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, আখি সুলতানা, জালাল উদ্দিন সোহেল, আজাদ বাঙ্গালি, আরশাদুর রহমান টিপু, আলমগীর নুর, বশিরুল ইসলাম পলাশ প্রমুখ। গুলশান ট্র্যাজেডিতে নিহতদের স্মরণে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে শোক র‌্যালি কাজীর দেউরী চত্বর হতে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করেন দলীয় কার্যালয়ে এসে শেষ হয়।

Print Friendly, PDF & Email
 

0 Comments

Leave a Reply

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

%d bloggers like this: