খাতেমুল আউলিয়ার গোলামীর মাধ্যমেই মিলবে শান্তি, মুক্তি ও মর্যাদা –শাহসুফি ডাঃ সৈয়দ দিদারুল হক মাইজভাণ্ডারী

এম বেলাল উদ্দিন,মাইজভান্ডার থেকে ঃ-
জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে দেশ-বিদেশের লাখো ভক্তের সমাগমে আল¬াহু আল¬াহু ধবনিতে মুখরিত হয়ে শেষ হলো গাউসুল আযম হযরত মাওলানা শাহসুফি সৈয়দ আহমদ উল্ল¬াহ মাইজভাণ্ডারী (কঃ)র ১১১তম পবিত্র ওরশ। মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফের আধ্যাতিœক শরাফতের প্রতিষ্ঠাতা ও মাইজভাণ্ডারী তরিকার প্রবর্তক এই মহান অলিয়ে কামেলের ৩দিনব্যাপী ওরশের গতকাল সোমবার ১০ মাঘ ছিল প্রধান ও সর্বশেষ দিবস। দিনব্যাপী কোরআনখানি, খতমে গাউসিয়া, শানে বেলায়ত মাহফিল, মীলাদুন্নবী ও তাওয়ালে¬াদে গাউছিয়া শেষে গাউসুল আযম মাইজভাণ্ডারী (কঃ)’র দোয়ার মেহরাব হতে অছি এ গাউসুল আযম মাইজভাণ্ডারী মাওলানা শাহসুফি সৈয়দ দেলাওর হোসাইন মাইজভাণ্ডারী (কঃ) মনোনীত দরবারে গাউসুল আযম মাইজভাণ্ডারীর মোন্তাজেম, সাজ্জাদানশীন, জিম্মাদার আওলাদ এবং গাউসুল আযম মাইজভাণ্ডারীর আদর্শবাহী সংগঠন আঞ্জুমানে মোত্তাবেয়ীনে গাউছে মাইজভাণ্ডারীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব শাহসুফি ডাঃ সৈয়দ দিদারুল হক মাইজভাণ্ডারী (মঃ)র নেতৃত্বে পূর্ব সিলসিলা অনুযায়ী আখেরি মোনাজাত পরিচালিত হয়। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, “ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ, তদুপরি সমগ্র বিশ্ব আজ অস্থির, অশান্ত। তৃষ্ণাতুর মানবজাতি আজ শান্তি ও মুক্তির জন্য উন্মুখ, দিশেহারা। কঠিন ঈমানি পরীক্ষার এই যুগে মহান আল¬াহর মনোনীত নায়েবে রাসুল অর্থাৎ আউলিয়া কেরামের দর্শনকে শক্তভাবে ধারণ, লালন ও চর্চা করতে হবে”। তিনি আরো বলেন, দরবারে গাউসুল আযম মাইজভাণ্ডারী এবং এই তরিকাকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠা সমস্ত কুপ্রথা, কুসংস্কার, বিকৃতি এবং বিভ্রান্তি থেকে মুক্তির জন্য অছি এ গাউসুল আযম শাহসুফি সৈয়দ দেলাওর হোসাইন মাইজভাণ্ডারীর দিকনির্দেশনা যথাযথভাবে অনুসরণের বিকল্প নেই। তার জীবনদর্শনের অনুসরণে আমিত্ব পরিহারপূর্বক আদবের সহিত খাতেমুল আউলিয়া গাউসুল আযম মাইজভাণ্ডারী (কঃ)র যথাযথ গোলামীর মাধ্যমেই মিলবে ইহকালীন ও পরকালীন শান্তি, মুক্তি ও মর্যাদা।” পরিশেষে, উপস্থিত সকল আশেক, ভক্ত, মুরীদানসহ দেশ, জাতি ও সমগ্র বিশ্ব মানবতার কল্যাণ কামনায় মোনাজাত করা হয়।

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register