ক্লান্তি কাটিয়ে এনার্জি বাড়াতে মেনে চলুন তিন দিনের এই ডিটক্স ডায়েট

ডিটক্স ডায়েটের কথা শুনেছেন নিশ্চয়ই? কেন সকলে এত ডিটক্স ডায়েটের কথা বলে বলুন তো? কাজের ব্যস্ততার মাঝে যেমন আমাদের ছুটি নিয়ে বেড়াতে যাওয়ার প্রয়োজন হয়, তেমনই প্রতি দিন অবিরাম কাজ করে চলা আমাদের শরীরের অঙ্গগুলোরও যত্ন নেওয়া দরকার। আর তাই মাঝে মাঝে প্রয়োজন ডিটক্স ডায়েট। তবে একটানা তিন দিনের বেশি কখনই এই ডিটক্স ডায়েট মেনে চলবেন না।

ডিটক্স ডায়েটে ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ ও ডিনারে শুধু স্মুদি খেতে হবে। জেনে নিন কোন সময় কীসের স্মুদি খাবেন। নীচে লেখা উপকরণগুলো একসঙ্গে ব্লেন্ডারে চালিয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে স্মুদি।

ঘুম থেকে উঠে

গ্রিন টি বা লেমন ওয়াটার

ব্রেকফাস্ট

জল: ১ কাপ

ফ্লাক্সসিড: ১ টেবল চামচ

রাসপবেরি: ১ কাপ

কলা: ১টা

পালং শাক: ১/৪ কাপ

আমন্ড বাটার: ১ টেবল চামচ

লেমন জুস: ২ চা চামচ

লাঞ্চ

আমন্ড দুধ: আধ কাপ

সেলারির ডাঁটি: ৪টে

শশা: ১টা

পাতাকপি: ১ কাপ

সবুজ আপেল: অর্ধেক

লেবুর রস: অর্ধের লেবুর

নারকেল তেল: ১ টেবল চামচ

আনারস: ১ কাপ

ডিনার

ডাবের জল: দেড় কাপ

ব্লু বেরি: ১ কাপ

আম: আধ কাপ

পাতাকপি: ১ কাপ

লেমন জুস: ১ টেবল চামচ

অ্যাভোকাডো: ১/৪

গোলমরিচ গুঁড়ো: ১/৪ চা চামচ

ফ্লাক্সসিড: ১ টেবল চামচ

ঘুম থেকে উঠেই প্রথমে গ্রিন টি খান। এক ঘণ্টার মধ্যে খেয়ে নিন ব্রেকফাস্ট স্মুদি। এরপর অর্ধেক মাল্টিভিটামিন ও ফিশ অয়েল সাপ্লিমেন্ট। লাঞ্চের পর খান অর্ধেক মাল্টিভিটামিন ও প্রোবায়োটিক সাপ্লিমেন্ট। খিদে পেলে লাঞ্চ ও ডিনারের মাঝে তিনটে স্মুদির যে কোনও একটা খেয়ে নিন। যেটা সবচেয়ে পছন্দের।

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register