breaking news New

এবার চালু হল শিক্ষক বদলি, প্রথম ধাপে ৮ জেলায় ২৮৭৩ শিক্ষক বদলি

স্কুল শিক্ষা দফতরের একটি নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, রাজ্যের যেখানে শিক্ষকের ঘাটতি রয়েছে, তেমনই চিহ্নিত আটটি জেলায় ২৮৭৩ জন শিক্ষকের বদলি করা হবে।

কলকাতা: রাজ্যের যে সমস্ত প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষক ও পড়ুয়ার অনুপাতে অসামঞ্জস্য রয়েছে, সেই সব স্কুলে শিক্ষক বদলি শুরু করল সরকার। তবে প্রথম ধাপে নির্ধারিত আটটি জেলাকে এই শিক্ষক বদলির জন্য চিহ্নিত করা হয়েছে বলে স্কুল শিক্ষা দফতরের একটি নির্দেশিকা থেকে জানা গিয়েছে।

উল্লেখ্য, শূন্য শিক্ষকপদ নিয়ে টানাপড়েনের জেরে ঠিক গত অক্টোবর মাসে রাজ্যে অনির্দিষ্ট কালের জন্য প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক বদলি বন্ধ হয়ে গিয়েছে। ইসলামপুরে দাঁড়িভিট স্কুলে ছাত্র মৃত্যুর ঘটনার কয়েক দিন পরেই এ বিষয়ে স্কুলশিক্ষা দফতরের একটি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পরবর্তী বিজ্ঞপ্তির আগে বদলির আবেদনও করা যাবে না।

স্কুল শিক্ষা দফতরের সাম্প্রতিক নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, রাজ্যের যেখানে শিক্ষকের ঘাটতি রয়েছে, তেমনই চিহ্নিত আটটি জেলায় ২৮৭৩ জন শিক্ষকের বদলি হবে। এর পর ধীরে ধীরে সমস্ত জেলায় একই ভাবে বদলি করা হবে । শিক্ষক-পড়ুয়ার অনুপাত সামঞ্জস্যপূর্ণ অবস্থানে নিয়ে আসাই রাজ্য সরকারের উদ্দেশ্য বলে জানা গিয়েছে।

প্রথম ধাপের আটটি জেলার মধ্যে রয়েছে আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পশ্চিম মেদিনীপুর এবং পুরুলিয়া। সংশ্লিষ্ট জেলাগুলির জেলাশাসককেও উল্লেখিত বিষয়ে অবহিত করা হয়েছে।

দফতর জানিয়েছে, প্রাথমিকের পর মাধ্যমিক স্কুলগুলিতেও এক‌ই ভাবে শিক্ষক বদলি করা হবে। তার প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে।

আরও পড়ুন: পশ্চিমবঙ্গ সংখ্যালঘু উন্নয়ন ও বিত্ত নিগমের উদ্যোগে নিয়োগ মেলা পার্ক সার্কাসে

এ ব্যাপারে বঙ্গীয় শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতির সহ-সাধারণ সম্পাদক স্বপন মণ্ডল জানান, “আনুপাতিক সামঞ্জস্যের প্রয়োজন, এটা বাস্তব । তবে প্রতিটি ইউনিটের জন্য এক জন করে শিক্ষকের প্রয়োজন আছে বলে আমরাও মনে করি। কোনো শিক্ষককের বদলি যেন ‘শাস্তিমূলক’ না হয়”।

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register