breaking news New

ঈদের পরদিন থেকে লাগাতার পরিবহন ধর্মঘট

বগুড়া : বগুড়ায় বিএনপি নেতা শাহীন হত্যা মামলায় গ্রেফতার পরিবহন মালিক নেতা আমিনুল ইসলামকে আইনি সহায়তা প্রদান না করার সিদ্ধান্ত থেকে জেলা আইনজীবী সমিতি সরে না এলে ঈদের পরদিন থেকে জেলায় বাস ও ট্রাকসহ সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

বগুড়া জেলা সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক যৌথ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান আকন্দ বৃহস্পতিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন।

বগুড়া প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে বগুড়া জেলা মোটর মালিক গ্রুপের সভাপতি শাহ মো. আকতারুজ্জামান ডিউক, মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ছামছুদ্দিন শেখ হেলাল, ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুল মান্নান মন্ডলসহ সড়ক পরিবহন-মালিক শ্রমিক যৌথ কমিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। গ্রেফতার আমিনুল ইসলাম যৌথ কমিটির যুগ্ম সম্পাদক ও জেলা মোটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক।

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, অ্যাডভোকেট শাহীন হত্যা মামলায় গ্রেফতার আমিনুলের পক্ষে আসাদ নামে এক আইনজীবী শুনানিতে অংশ নিতে চাইলেও কতিপয় আইনজীবী তাকে মারপিট করে আদালত থেকে বের করে দেন

বিষয়টিকে দুঃখজনক উল্লেখ করে সংবাদ সম্মেলনে বগুড়া জেলা সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক যৌথ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান বলেন, প্রত্যেক মানুষের আইনি সহায়তা পাওয়ার অধিকার রয়েছে। বগুড়ার আইনজীবীরা যা করছেন তাতে আমরা মর্মাহত। পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা প্রতিনিয়ত আইনজীবীদের এমন আচরণ নিয়ে আমাদের কাছে প্রশ্ন করছেন। তাই যৌথ কমিটি জরুরি সভা করে সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, আইনজীবী সমিতি যদি তাদের অন্যায় আচরণ থেকে নিজেদের সরিয়ে না নেন, তাহলে ঈদুল ফিতরের পরদিন থেকে বগুড়া জেলার বাস, ট্রাক, পিকআপ, সিএনজি চালিত অটোরিকশা ও প্রাইভেট গাড়ির শ্রমিকসহ কোনো মালিক রাস্তায় গাড়ি বের করবে না। শ্রমিকরাও তাদের কর্মস্থলে যাবে না।

তিনি তাদের ঘোষণা বাস্তবায়নে প্রশাসনসহ সবার সহযোগিতা কামনা করে বলেন, অন্যথায় পরিবহন খাতে যেকোনো ধরনের অরাজকতা সৃষ্টি হলে তার দায় দায়িত্ব জেলা মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ নেবে না।

উল্লেখ্য, বগুড়া জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য ও বিএনপি নেতা মাহবুব আলম শাহীন গত ১৪ এপ্রিল রাতে বগুড়ার উপশহর বাজার এলাকায় খুন হন। ওই হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে নিহত শাহীনের স্ত্রী আকতার জাহান শিল্পী ১৬ এপ্রিল বগুড়া মোটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলামসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

হত্যাকাণ্ডের পরদিন ১৫ এপ্রিল বগুড়া জেলা আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীন হত্যাকাণ্ডে জড়িত কোনো আসামিকে সমিতির কোনো সদস্য আইনি সহায়তা দেবে না মর্মে সিদ্ধান্ত হয়। এ সিদ্ধান্তের কারণে অ্যাডভোকেট শাহীন হত্যা মামলায় গ্রেফতার প্রধান আসামি বগুড়া মোটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলামকে গ্রেফতারের পর একাধিকবার আদালতে নেয়া হলেও কোনো আইনজীবী তার পক্ষে দাঁড়াননি। ফলে ধার্য তারিখে আমিনুল নিজেই তার মামলার শুনানি করেন।-জাগো নিউজ

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register