আয়না চাকমার অপহরণ ও ধর্ষণের প্রতিবাদে রাঙামাটিতে মানববন্ধন

মোঃ সাইফুল উদ্দীন,রাঙামাটি: রাঙামাটির বিলাইছড়ি উপজেলার পাহাড়ি নারী আয়না চাকমাকে পাহাড়ি ছেলেদের দ্বারা ধষর্ণের শিকার ও অপহরনকারীদের শাস্তির দাবিতে রাঙামাটিতে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামীলীগ রাঙামাটি পার্বত্য জেলা শাখা। বৃহস্পতিবার সকালে রাঙামাটি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে এই মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে মহিলা আওয়ামীলীগকে সমর্থন জানিয়ে মানববন্ধনে যোগদেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ রাঙামাটি জেলা শাখা।
মানববন্ধনে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী ফিরোজা বেগম চিনুর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক জেবুনেছা রহিম জেবুর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সহ-সাধারণ সম্পাদক মৈাহিতা দেওয়ান, মহিলা আওয়ামীলীগের নেত্রী নাজমা আক্তার, মহিলা পরিষদের সভানেত্রী কনিকা বড়–য়া, সাধারণ সম্পাদক সামিমারা বেগম, নারী নেত্রী টুকু তালুকদার।
সভাপতির বক্তব্যে সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু বলেন, সারা দেশের ন্যায় বর্তমানে দেখা যচ্ছে পাহাড়েও নারীরা ধর্ষনের শিকার হচ্ছে। একের পর এক পাহাড়ে নারীরা ধর্ষন ও নির্যাতনের শিকার হচ্ছে কিন্তু প্রশাসন কোন কিছু করতে পাচ্ছে না সেই দোষিদের বিরুদ্ধে। এই নির্যাতন বন্ধ করার জন্য প্রশাসনকে মূখ্য ভুমিকা পালন করতে হবে। কোন সন্ত্রাসী দলের হুমকির ভয়ে বসে থাকলে হবে না।
তিনি আরো বলেন, ধর্ষনকারীদের রাজনৈতিক, ধর্মীয় ও জাতিগত পরিচয় থাকতে পারে না। তাদেরকে রাজনৈতিক, ধর্মীয় বা জাতিগত পরিচয় দিয়ে আশ্রয় দিলে সমাজের জন্য ক্ষতি হবে, পাহাড়ে আরো নারীরা ধর্ষনের শিকার হবে।
পাহাড়ে একটি দল এই ঘটনাকে ধামা চাপা দেওয়ার চেষ্ঠা করছে অভিযোগ করে সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু আরো বলেন, আয়না চাকমাকে যারা ধর্ষন করেছে তারা পাহাড়ের একটি দলের লোক বলে জানা গেছে, তাই তারা এই ঘটনাকে ধামা চাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে। এর দ্বারা বুঝা যাচ্ছে বাঙ্গালীদের দ্বারা নয়, একশ্রেণীর পাহাড়ি পুরুষের দ্বারা পাহাড়ি নারীরাই ধর্ষন ও নির্যাতনের শিকার হচ্ছে।
মানব বন্ধন থেকে আয়না চাকমার নির্যাতন ও ধর্ষণকারীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানানো হয়।

Print Friendly, PDF & Email
 

0 Comments

Leave a Reply

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

%d bloggers like this: