breaking news New

আজ ভারতে বড় ধরনের হামলা করতে পারে পাকিস্থান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আজ ন্যাশনাল কমান্ড অথরিটির বৈঠক ডেকেছে পাকিস্তান। এ কমিটি মূলত পাকিস্তানের পরমাণু অস্ত্র সংক্রান্ত সব বিষয় নিয়ন্ত্রণ করে। তাছাড়া আজই পাকিস্তান পার্লামেন্টের যৌথ অধিবেশন ডাকা হয়েছে। ফলে ধারণা করা হচ্ছে, আজ বড় ধরনের কোনো সিদ্ধান্তই নিতে যাচ্ছে পাকিস্তান।
ভারতের হামলার পরই পাকিস্তানের নিরাপত্তা পরিষদ বৈঠকে বসেছিল। সেখান থেকে দিল্লিকে হুমকিও দিয়ে ইসলামাবাদ জানিয়েছে, নিজেদের সময় মতো ভারতকে ‘সারপ্রাইজ’ দেবে। সেই লক্ষ্যেই আজ গুরুত্বপূর্ণ এ দুটি কর্মসূচি হাতে নিয়েছে পাকিস্তান।
ভারতের পক্ষ থেকে এ হামলাকে ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক টু’ হিসেবে আখ্যায়িত করে এ হামলায় পাকিস্তানে জয়েশ-ই-মোহাম্মদের ঘাঁটি ধ্বংস করা এবং সেখানে দুই-তিনশ মানুষকে হত্যা করার দাবি করে। কিন্তু পাকিস্তানের পক্ষ হতে একে কেবল আকাশসীমা লঙ্ঘন বলে দাবি করে বলা হয়, পাকিস্তানী বাহিনীর ধাওয়ায় তারা পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়। এতে মাত্র একজন আহত হয়েছে।
তবে সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘনের অভিযোগ করে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে বলা হয়, ভারত যা করেছে তার জবাব দেওয়া হবে। শুধু তাই নয় পুরো বিষয়টি তারা জাতিসঙ্ঘেও তুলবে তারা। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, আমরা ভারতকে চমকে দেব। তার কথাতেই স্পষ্ট হয়েছে, এই চমকে দেয়ার ব্যাপারটা সামরিক এবং রাজনৈতিক দুইভাবেই করতে চায় পাকিস্তান।

পুলওয়ামায় আত্মঘাতী হামলায় সিআরপিএফের ৪৯ সদস্য নিহত হওয়ার পর দেশের ভেতর পাকিস্তানবিরোধী অবস্থান বেশ জোরালো হয়ে ওঠে। নির্বাচনকে সামনে রেখে এ ইস্যুটি স্বাভাবিকের চেয়ে বড় আকার ধারণ করে। এছাড়া সাধারণ মানুষের পক্ষ থেকে পাকিস্তানকে এ হামলার জন্য দায়ী করে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি ওঠে। ভারত প্রথম আন্তর্জাতিকভাবে পাকিস্তানকে একঘরে করে ফেলার চেষ্টা চালিয়েছিল। কিন্তু তাতে ব্যর্থ হওয়ার পর পুলওয়ামা হামলার ১২দিন পর এ প্রতিক্রিয়া জানায় ভারত।
ভারতীয় কর্তৃপক্ষ জানায়, মঙ্গলবার রাত সাড়ে তিনটায় সীমান্ত পেরিয়ে হাজার কিলো বোমা ফেলে পাকিস্তানের কয়েকটি সশস্ত্র গোষ্ঠীর বহু সদস্যকে হত্যা করা হয়েছে। ২১ মিনিটের এ হামলায় জয়েশ-ই মোহাম্মদ, লস্কর-ই-তৈয়বা এবং হিজবুল মুজাহিদিনের তিনটি ঘাঁটি তছনছ করা গিয়েছে।
কিন্তু ভারতের এই সমস্ত দাবি কার্যত উড়িয়ে দিয়েছে পাকিস্তান। বলেছে, পাকিস্তানের নিরাপত্তাবাহিনীর তাৎক্ষণিক প্রতিরোধে তারা পালিয়ে যায়। ভারত যেখানে সীমান্তের ৭০-৮০ মাইল ভেতরে ঢুকে হামলার দাবি করেছে, সেখানে পাকিস্তান বলছে, সীমান্তের ভেতর তিন-চার মাইল ঢুকতেই তাদের প্রতিরোধ করা হয়েছে। তবে দেশের জনগণ এবং সশস্ত্র বাহিনীকে যে কোনো পরিস্থিতির জন্য তৈরি থাকতে বলেছেন খোদ প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।
এরই মাঝে আজ পরমাণু অস্ত্র নিয়ে বৈঠকে বসছে পাকিস্তান। তাছাড়া পাকিস্তান পার্লামেন্টের যৌথ অধিবেশনও ডাকা হয়েছে। ফলে ধারণা করা হচ্ছে, আজ বড় ধরনের সিদ্ধান্ত আসতে পারে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে।

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register