আইওআরএ সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

জাকার্তা কনভেনশন সেন্টারে প্রথমবারের মতো ইন্ডিয়ান ওশান রিম অ্যাসোসিয়েশন (আইওআরএ) নেতাদের শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার সকালে ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও আইওআরএর বর্তমান চেয়ারম্যান জোকো উইদোদো আনুষ্ঠানিকভাবে এই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন। এ সময় ভারত মহাসাগরের তীরবর্তী ২১টি দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধান এবং প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

আইওআরএর ৭ ডায়ালগ পার্টনারসহ উল্লেখযোগ্যসংখ্যক আমন্ত্রিত অতিথিও অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ইন্দোনেশিয়ার ঐতিহ্যবাহী ‘গেনডাং পাপুয়া’ (ছোট ঢোল) বাজিয়ে স্থানীয় শিল্পীরা ঐতিহ্যবাহী নৃত্য পরিবেশন করেন।

পরে অংশগ্রহণকারী রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানদের উদ্দেশে তারা বাদ্যযন্ত্র পরিবেশন করেন।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়াও দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমা, ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট আব্দু রাব্বু মনসুর হাদি, শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা, মাদাগাসকারের প্রেসিডেন্ট হেরি রাজাওনারিমামপিয়ানিনা, মোজাম্বিকের প্রেসিডেন্ট ফিলিপ জাসিনটো নাইয়ুসি, ভারতের উপরাষ্ট্রপতি হামিদ আনসারী, মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক, কমোরোসের ভাইস প্রেসিডেন্ট আজালি আসোয়ুমানি, সিসিলির ভাইস প্রেসিডেন্ট ভিনসেন্ট মেরিটন ও অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল এই শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন।

 

আইওআরএর ২০তম বার্ষিকী উপলক্ষে এই শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম ভারত মহাসাগরের তীরবর্তী দেশসমূহ নিয়ে আইওআরএর এই জোট।

১৯৯৭ সালে প্রতিষ্ঠার পর এই প্রথম ইন্দোনেশিয়ায় তিন দিনব্যাপী শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ বছরের প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘স্ট্রেনদেনিং মেরিটাইম কো-অপারেশন ফর এ পিসফুল, স্ট্যাবল অ্যান্ড প্রসপারাস ইন্ডিয়ান ওশান।’

এর আগে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী সম্মেলনস্থলে পৌঁছালে ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো তাকে অভ্যর্থনা জানান।

পরে প্রধানমন্ত্রী আইওআরএ শীর্ষ সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানদের সঙ্গে ফটোসেশনে যোগ দেন।

সম্মেলন আইওআরএর ২১টি সদস্যরাষ্ট্রের নেতাদের এবং সাত ডায়ালগ পার্টনার ছাড়াও অন্যান্য বিশেষ আমন্ত্রিত অতিথিদের মাঝে পারস্পরিক সহযোগিতা ও ঘনিষ্ঠতা বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

সংগঠনটির সদস্যরাষ্ট্রগুলো হলো- অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ, কমোরোস, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, কেনিয়া, মাদাগাসকার, মালয়েশিয়া, মরিশাস, মোজাম্বিক, ওমান, সিসিলি, সিঙ্গাপুর, সোমালিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলঙ্কা, তাঞ্জানিয়া, থাইল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইয়েমেন।

অ্যাসোসিয়েশনের ডায়ালগ পার্টনার যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জাপান, জার্মানি ও মিশর।

সংগঠনটির ডায়ালগ পার্টনার হচ্ছে চীন, মিশর, ফ্রান্স, জার্মানি, জাপান, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র।

সূত্র : বাসস

মতামত দিন

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register