অপহরণকারী গ্রেফতার জলঢাকায় ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণের অভিযোগ

নীলফামারী প্রতিনিধি
নীলফামারীর জলঢাকায় ৫ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় রবিবার রাতে মেয়েটির বাবা এমদাদুল হক বাদী হয়ে জলঢাকা থানায় অপহরণ ও ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ১৫। ঘটনার সাথে জড়িত মনোয়ার হোসেন (৩৫) কে রবিবার রাতেই গ্রেফতার করে থানাপুলিশ। ঘটনাটি উপজেলার খুটামারা ইউনিয়নের বামনা-বামনী পূর্বপাড়া এলাকায়। অভিযোগে জানা যায়, অপহরণকারী মনোয়ার তার শ্যালক জাহাঙ্গীরের সাথে ওই স্কুল ছাত্রীর বিয়ে দিবে বলে তাদের বাড়ীতে যাতায়াত শুরু করে। একপর্যায় মেয়েটির সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক হয়। ঘটনার দিন শনিবার সন্ধ্যায় মনোয়ার ছাত্রীটিকে ফোন করে বাসার বাহিরে বের করে বিবাহ করিবে বলিয়া লইয়া যায়। পরদিন রবিবার আবার মেয়েটিকে বামনা-বামনী বাজারে রাখিয়া যায়। অভিযোগে আরও জানা যায়, অপহরণকারী মনোয়ার ওই স্কুল ছাত্রীটিকে তার এক আত্মীয়ের বাসায় নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। রবিবার রাতে থানায় অভিযোগ দিতে এসে মেয়েটি জানায়, মনোয়ার আমাকে বিয়ে করবে বলে তার এক আত্মীয়ের বাসায় আমাকে নিয়ে যায়। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জলঢাকা থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান বলেন, অভিযোগের বিষয়টি আমলে নিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং মামলাটির তদন্ত চলছে।

0 Comments

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password

Register